ফিলিপ জোয়েল হিউজ এর আঘাত প্রাপ্তির সাত বছর _Seven years since Philip Joel Hughes was injured_

in blurtsports •  9 days ago 

বিসমিল্লাহির রহমানির রহিম

বর্তমান বিশ্ব যে কয়টি আকর্ষণীয় খেলা আছে তার মধ্যে ক্রিকেট অন্যতম । ক্রিকেট হচ্ছে ব্যাট বল নিয়ে একটা দলগত খেলা । অনেকে ক্রিকেট খেলাকে ভদ্র লোকের খেলা বলে থাকেন । গ্রামের সাধারণ মানুষ যারা এই খেলা বোঝে না তারা বলে থাকে, এটা আবার কি ধরনের খেলা একজন ঢিল মারে আরেক জন লাঠি দিয়ে মারতে থাকে ।

260px-Phillip_Hughes.jpegsource

এই ক্রিকেট মাঠে কতো রকম ঘটনা যে ঘটে তার কোন ঠিক নাই । কোন কোন ঘটনা চোখে পানি নিয়ে আসে, আবার কোন কোন ঘটনা বিরক্তি সৃষ্টি করে । কোন ঘটনা থেকে অনেক কিছু শেখা যায় আবার কোন কোন ঘটনা হৃদয় নাড়া দিয়ে যায় ।

pexels-patrick-case-3628912.jpgsource

তেমনই এক হৃদয়বিদারক ঘটনা ঘটেছিল ২০১৪ সালের ২৭ নভেম্বর তথা আজকের এই দিনে । সেই দিন সিডনি ক্রিকেট গ্রাউন্ডে চলছিল ঘরোয়া ক্রিকেট টুর্নামেন্টের শেভিল্ড শিল্ড ম্যাচ । সেই ম্যাচে ৬৩ রানে ব্যাট করছিলেন ফিলিপ জুয়েল হিউজ, বল করছিলেন শন এবেট । বল করার সময় শন এবেটের হাত থেকে একটা বল ছুটে যায় এবং হিউজের মাথায় গিয়ে আঘাত করে । বলের গতি এতো বেশি ছিল যে হেলমেট ভেদ করে বলের আঘাত হিউজের মাথায় গিয়ে লাগে, সাথে সাথে হিউজ মাটিতে লুটিয়ে পড়েন । হাসপাতালে ভর্তি করার দুই দিন পর হিউজ মারা যান ।

220px-Phil_Hughes_batting.jpgsource

আজকে এই দিনে পুরা ক্রিকেট বিশ্ব হিউজকে শ্রদ্ধা ভরে স্বরণ করছে । অনেকে এ কথা বলছেন, তুমি ৬৩* রানেই নট আউট থাকবে পুরা বিশ্বের কোন বলার আর তোমাকে আউট করতে পারবে না ।

ফিলিপ জুয়েল হিউজ এর জন্ম ৩০ নভেম্বর ১৯৮৮, তিনি ছিলেন অস্ট্রেলিয়া দলের টেস্ট এবং ওডিআই ক্রিকেটার, বা হাতি উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান । ২০০৯ সালে মাত্র বিশ বছর বয়সে টেস্ট দলে অভিষেক হয় আর ওডিআই অভিষেক হয় ২০১৩ সালে ।

হিউজ শুরু থেকেই শর্ট বল খেলায় একটু দুর্বল ছিলেন যার কারণে ২০০৯ সালের অ্যাশেস সিরিজ চলার সময় টেস্ট দল থেকে বাদ পড়েন । তার জায়গায় শেন ওয়াটসন স্থলাভিষিক্ত হন ।

Phil_Hughes_cropped.jpgsource

তিনি পুনরায় ২০১০ সালে পাকিস্তানের বিরুদ্ধে দলে জায়গা পান এবং ঐ বছর মার্চে নিউজিল্যান্ড এর বিরুদ্ধে টেস্টের দিত্বীয় ইনিংসে রান তাড়া করতে নেমে ৮৩* রানে অপরাজিত থাকেন ।

তিনি মোট ২৬ টি টেস্ট ম্যাচ খেলে ৩২.৬৫ গড়ে ১৫৩৫ রান করেন, যার মধ্যে তিনটা ১০০ এবং সাতটা ৫০ আছে, সর্বোচ্চ রান ১৬০ । আর ওডিআই খেলেন ২৫ টি, ৩৫.৯১ গড়ে রান করেন ৮২৬, দুইটা ১০০ চারটা ৫০ করেন, সর্বোচ্চ রান ১৩৮ ।

ফিলিপ জুয়েল হিউজ থাকবেন আজীবন ৬৩* রানে অপরাজিত হয়ে । তার আঘাত প্রাপ্তির আজ সাত বছর ।

ধন্যবাদ

      Bismillahir Rahmanir Rahim

Cricket is one of the most exciting sports in the world today. Cricket is a team sport with bat and ball. Many people call cricket a gentleman's game. The common people of the village who do not understand this game say that it is a kind of game where one person hits another with a stick.

It is unknown at this time what he will do after leaving the post. Some incidents bring tears to the eyes, while others cause annoyance. Some things can be learned from some events and some events can move the heart.

Such a heartbreaking incident happened on November 26, 2014 and today is the day. The Shevild Shield match of the domestic cricket tournament was being played at the Sydney Cricket Ground that day. Philip Jewel Hughes was batting for 63 runs in that match, Shaun Abbott was bowling. A ball bounced off Shawn Abbott's hand and hit Hughes in the head. The speed of the ball was so high that the ball pierced the helmet and hit Hughes in the head, causing Hughes to fall to the ground. Hughes died two days after being admitted to the hospital.

Today, the whole cricket world is paying homage to Hughes. Many people are saying that you will not be out for 63 * runs and no one in the whole world will be able to get you out.

Philip Jewel Hughes was born on 30 November 1986. He was Australia's Test and ODI cricketer, or the inaugural batsman. He made his Test debut in 2009 at the age of 20 and made his ODI debut in 2013.

Hughes was a bit of a shortstop from the start, which led to his omission from the Test team during the 2009 Ashes series. He was replaced by Shane Watson.

He got a place in the team again against Pakistan in 2010 and remained unbeaten on 63 * in the second innings of the Test against New Zealand in March of that year.

He played a total of 28 Test matches and scored 1535 runs at an average of 32.75, including three 100s and seven 50s, with a maximum of 160 runs. He played 25 ODIs, scored 628 runs at an average of 35.91, scored two 100s and four 50s, and scored a maximum of 136 runs.

Philip Jewel Hughes will remain unbeaten on 63 * for life. Today is the seventh anniversary of his injury.

Thanks

Authors get paid when people like you upvote their post.
If you enjoyed what you read here, create your account today and start earning FREE BLURT!
Sort Order:  

Thank you for using my upvote tool 🙂
Your post has been upvoted (10.79 %)

Delegate more BP for better support and daily BLURT reward 😉
@tomoyan
https://blurtblock.herokuapp.com/blurt/upvote